ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি ও সমাজকল্যাণমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেছেন, রাজপথে আন্দোলনের মতো ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে মিলে সংলাপে অংশ নিয়েও পরাজিত হয়েছে বিএনপি। ঐক্যফ্রন্টের ঘাড়ে ভর দিয়ে তারা সংলাপের নামে আন্দোলনের পথ খুঁজছিল। মনে করেছিল, প্রধানমন্ত্রী সাড়া দেবেন না এবং সেই অজুহাতে তারা আন্দোলনে নেমে পড়বেন। কিন্তু তা হয়নি।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর কাকরাইলে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের (আইডিইবি) ৪৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শোভাযাত্রা উদ্বোধন করে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী মেনন বলেন, প্রধানমন্ত্রী তাদের সংলাপে ডেকেছেন, দাবিও মেনে নিয়েছেন। এখন বিএনপি দিশেহারা হয়ে পড়েছে। তারা আন্দোলনে যেতে চাইছে, কিন্তু নতুন কোনো ইস্যু পাচ্ছে না। ইস্যু না পেয়ে দলীয় প্রধানের মুক্তির দাবি তুলছে বিএনপি।

কিন্তু তাদের নেত্রী ১/১১-এর সময় এতিমের টাকা আত্মসাতের মামলায় সাজা পেয়েছেন। সেখানেও কিছু করতে পারছেন না তারা। কাজেই তারা এখন আন্দোলনে পরাজিত, সংলাপেও পরাজিত এবং জাতীয় নির্বাচনেও পরাজিত হবে।

সমাজকল্যাণমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের মহাসড়কে রয়েছে দেশ। চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় তরুণ প্রজন্মের সহযোগিতা প্রয়োজন। আগামী নির্বাচনে তরুণদের ভোট বড় ভূমিকা রাখবে। অতীতের মতো এবারও তরুণসমাজ উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে রাখবে।

রাশেদ খান মেনন বলেন, দেশের অবকাঠামো নির্মাণে যে বিশাল কার্যক্রম চলছে, ডিপ্লোমা প্রকৌশলীরা তার মূল শক্তি হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন। সরকারের উন্নয়নের অগ্রযাত্রা ধরে রাখতে জনমত গঠনে ভূমিকা রাখার জন্য ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

আইডিইবির কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি এ কে এম এ হামিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামাল চৌধুরী, আইডিইবির সাধারণ সম্পাদক শামসুর রহমান প্রমুখ।